Tamim Ahmed-
Tamim Ahmed
Freelancing
30 Dec 2021 (5 months ago)
Araihazar, Narayanganj, Dhaka, Bangladesh
গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে অনলাইনে কিভাবে ইনকাম করা যায়?

গুগল অ্যাডসেন্স দিয়ে ইনকামের ব্যাপারটি খুবই জনপ্রিয় এবং এটি একটি স্থায়ী আয়ের উৎস। কারণ এ ধরনের আয়ের মাধ্যম থাকলে অল্প কিছু কাজ করেই বসে বসে প্রচুর অর্থ উপার্জন করা যায়। কীভাবে? চলুন আলোচনা করা যাক –

প্রথমেই আপনাকে জানতে হবে যে Google Adsense কী এবং কীভাবে কাজ করে। Google Adsense হলো গুগলের একটি বিজ্ঞাপন এজেন্সি সার্ভিস। যারা আপনার কোম্পানির বিজ্ঞাপন চাইলে সারা বিশ্বে দিতে পারবে। একটু ভেবে দেখুন, বর্তমানে মানুষ সবচেয়ে বেশি সময় দিচ্ছে কোথায়— টেলিভিশনে নাকি ইন্টারনেট (ফেসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম, মেসেঞ্জার, টুইটার, লিংকডইন ইত্যাদি)-এর মাঝে? অবশ্যই উত্তর হবে ইন্টারনেটে। তাই যেহেতু এসব সোশাল মিডিয়া ওয়েবসাইটে মানুষ বেশি প্রবেশ করে, গুগল এগুলোর মালিকের সাথে চুক্তি করে নিয়েছে তাদের ওয়েবসাইটে গুগল বিজ্ঞাপন দেবে। লক্ষ করুন ছবিগুলোর দিকে।


উপরের ছবিগুলোতে তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো মার্ক করা লেখাগুলো হলো “লেখার বিজ্ঞাপন” এবং প্রথম ছবিটির ভিডিওটি একটি বিজ্ঞাপনের ভিডিও। এটি একটি “ভিডিও বিজ্ঞাপন” যা ৫ সেকেন্ড চলে মূল ভিডিও প্লে হওয়ার আগে। কেটে দেওয়ার কোনো অপশন থাকে না। ভিউয়ারসকে দেখতেই হয়। এখানে আরও থাকে ব্যানারের বিজ্ঞাপন। আমরা যখন ইউটিউবে ভিডিও দেখি, তখন এ ধরনের জিনিস চোখে পড়ে। এগুলোই হলো বিজ্ঞাপন, যা গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আসছে। আর গুগল অ্যাডসেন্স এগুলো বিভিন্ন কোম্পানির কাছ থেকে নিয়েছে। এক্ষেত্রে গুগল একটি চার্জ কোম্পানি থেকে নেয় এবং সেটির কিছু অংশ ইউটিউব বা ফেসবুক/ইনস্টাগ্রামকে দেয়। কারণ সেখানে গুগল বিজ্ঞাপন দেয়।

কিন্তু ইউটিউব যেহেতু গুগলেরই একটি প্রোডাক্ট বা সার্ভিস, তাই এই অর্থ গুগলের কাছেই রয়ে যায়, যা ইউটিউব অফিসের আন্ডারে হিসাব থাকে।

যা-ই হোক, চলুন জেনে নিই আপনি কীভাবে গুগল অ্যাডসেন্স দিয়ে উপার্জন করবেন :

প্রথমে খুব সহজভাবে বোঝানোর চেষ্টা করছি।

‘আমরা অনেকেই সাপ খেলা দেখেছি। সেখানে একজন সাপুড়ে অনেকগুলো সাপ নিয়ে আসেন এবং খেলা দেখানোর আগে মানুষের ভিড় জমায়। কীভাবে ভিড় জমায়? এই ভিড় জমানোর জন্যই এখানে সাপ নিয়ে আসা হয়েছে। এরপর তিনি অনেক ভালো ভালো নীতিকথা বলেন, যা শুনে আমাদের মাঝে অনেকেরই ভালো লাগে। আমরা সাপুরের প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করি। এরপর সাপুড়ের সাপ খেলা দেখানোর পরে তিনি কিছু প্রোডাক্ট অফার করে বসেন এগুলো হলো কোনো তাবিজ, গাছের ছাল ইত্যাদি যা সাথে রাখলে নাকি বালা মুসিবত দূর হয় বলে তিনি বলেন। যাক এসব খুবই সেনসেটিভ জিনিস সেটি আমার আলোচনার বিষয় নয়। এরপর অনেকেই তাবিজ কিনেন’।

এই গল্প থেকে বোঝা যায় যে, তিনি এখানে তাবিজ বিক্রি করলেন তার উদ্দেশ্য ছিল তাবিজ বিক্রি করা। আর তাই তিনি মানুষের দ্বারে দ্বারে না গিয়ে এমন কাজ করলেন যেন মানুষ তার কাছে আসে আর তিনি কোনো এক সিস্টেমে তাদের মোটিভেট করে মজা দিয়ে তাবিজ বিক্রি করেছেন।

ঠিক এই প্রক্রিয়াটিই মার্কেটিং-এর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

ধরুন আপনি বাংলাদেশ বনাম ভারতের ক্রিকেট ম্যাচ দেখছেন। এসময় লাখ লাখ মানুষ টিভি সামনে বসেন খেলা দেখার জন্য। কিন্তু খেলার মাঝে বিরতিগুলোতে বিভিন্ন শ্যাম্পু, কসমেটিক ইত্যাদির বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। কারণ সেই সময় সবাই টিভি দেখে এবং এই সুযোগে ওই কোম্পানিগুলো তাদের প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপন করে ফেলে। আর এভাবে চ্যানেলের মালিক টাকা পায়।

ঠিক তেমনি আপনি যদি একটি ইউটিউব চ্যানেলের মালিক হন, তাহলে আপনিও ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য প্রথমেই আপনাকে বেছে নিতে হবে যে আপনি কী নিয়ে ভিডিও করবেন।

আপনার যদি কোনো অভিজ্ঞতা থাকে যেটা মানুষের শিখলে কাজে লাগবে, আপনি ইউটিউবে তা শেখাতে পারেন। যখন মানুষ আপনার ভিডিও দেখবে তখন গুগল অ্যাডসেন্স সেখানে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে আর আপনি সেখান থেকে টাকা পাবেন।

আমাদের সবার মাঝে কোনো না কোনো ট্যালেন্ট রয়েছে। আপনিও ভেবে দেখুন, আপনি কোন জিনিসটি ভালো পারেন। সেটি দিয়ে ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করে আপলোড করতে পারেন। যেমন ধরুন: Drawing, Cooking Racipe, Health Care, Cosmetic Food Review ইত্যাদি হাজারও জিনিস খুঁজলেই আপনি পেয়ে যাবেন যে কী নিয়ে ইউটিউবিং শুরু করা যায়। এক্ষেত্রে ইউটিউব চ্যানেলকে Google Adsense-এর অ্যাড বহন করার মতো দর্শক থাকতে হবে। তারপর অ্যাডসেন্স কোম্পানিতে অ্যাপ্লাই করলে আপনার চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানো শুরু করবে। এ নিয়ে অনেক ভিডিও রয়েছে ইউটিউবে। পরের অধ্যায়ে আলোচনা রয়েছে।

তাহলে এখানে আপনি জানলেন যে Google Adsense-এ কাজ করতে গেলে অবশ্যই ট্রাফিক তথা বেশি বেশি মানুষের প্রবেশ আপনার ইউটিউব চ্যানেল বা ওয়েবসাইট অথবা ফেসবুক পেজে থাকতে হবে। আর এটি তখনই হবে যখন আপনি মানুষের জন্য কাজ করবেন। মানুষ যেসব জিনিস পছন্দ করে বা যেসব শিখতে আগ্রহী সে ধরনের ভিডিও তৈরি করতে পারেন তবেই লাখ লাখ মানুষ আপনার ভিডিও দেখবে।

অন্যদিকে ওয়েবসাইট তৈরি করে ইনকামের ব্যাপারটিও ঠিক একই রকম। ইউটিউবে ভিডিওর মাধ্যমে উপরের উল্লেখিত কাজগুলো করতে হয় আর ওয়েবসাইটে লিখে লিখে ঠিক একই কাজ করতে হয়। খেয়াল করুন, আমরা মাঝে মাঝে অনেক কিছু গুগলে সার্চ দিয়ে খুঁজে এবং পেলে সেই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করি, তাই না? প্রবেশ করার পরে সেখানে বিজ্ঞাপন থাকেই। নিচের ছবিটি লক্ষ করুন :

এটি জনপ্রিয় পত্রিকা “প্রথম আলোর”

ওয়েবসাইটের প্রথম পাতা। উপরের ছবিতে লাল দাগ দিয়ে এবং তীর চিহ্ন দিয়ে মার্ক করা ছবি ও লেখাগুলো হলো Google Adsense থেকে আসা। এই ছবি ও লেখার বিজ্ঞাপন প্রথম আলো দেয়নি। প্রথম আলোর ওয়েবসাইটে গুগল পাঠিয়েছে। কারণ প্রথম আলোর ওয়েবসাইটে দৈনিক প্রায় এক লক্ষ মানুষ খবর পড়তে প্রবেশ করে। আর তাই এখানে বিজ্ঞাপন দেওয়া মানে বিশাল ব্যাপার। এই বিজ্ঞাপনের ফলে “প্রথম আলো” একটা মোটা অংকের টাকা গুগল অ্যাডসেন্স থেকে পেয়ে থাকে।

সুতরাং আপনিও এমন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন, যেখানে মানুষ বিভিন্ন প্রয়োজনে ভিজিট করবে। আপনি এমন ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন যেখানে প্রবেশ করলে মানুষ “হেলথ সম্পর্কিত টিপস” পাবে। অথবা বিভিন্ন বিনোদনমূলক বিষয় নিয়েও আপনি লেখালিখি করতে পারেন। অর্থাৎ আপনি যে বিষয়ের ওপর ভালো দক্ষ সে বিষয় নিয়ে একটি ওয়েবসাইট খুলতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার হয়তো ৪-৫ হাজার টাকা খরচ হতে পারে। কীভাবে খুব সহজে ওয়েবসাইট খুলতে হবে তার জন্য ইউটিউবে অনেক ভিডিও রয়েছে।

425 Views
1 Comment
Forward Messenger
. 24

Craigslist Update News
-
- -
Android Studios Earning Apps
-
- -
Basics Press Notice
1
Technology Updates
10
Electronics
2
Android Programing
16
iOS Programing
2
Computer Programing
13
Wireless Fidelity
4
Hacking tutorials
15
Mobile Networks
3
Videos Programing
5
Movie Review
4
Freelancing
35
Web Development
18
Social Network
23
Politics News
2
Education Guideline
6
Religious Fiction
15
Magic Tricks
3
LifeStyle
17
Uncategorized
40
1 comment to “গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে অনলাইনে কিভাবে ইনকাম করা যায়?”

  1. Mosa (new) (4 months ago)

    Thank you best suggest 😍😍😍