Tamim Ahmed-
Tamim Ahmed
Freelancing
21 Dec 2021 (5 months ago)
Araihazar, Narayanganj, Dhaka, Bangladesh
ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসাের্সিং – freelancing and outsourcing bangla tutorial

প্রচলিত ব্যবস্থায় কোনাে কর্মীকে স্বশরীরে কর্মস্থলে গিয়ে কাজ করতে হয়। কিন্তু ইন্টারনেটের কল্যাণে এখন বিশ্বের যেকোনাে দেশের যেকোনাে কর্মী অন্য যেকোনাে দেশের কর্মদাতার কাজ ঘরে বসেই করতে পারেন এবং তার কাজের পেমেন্ট অনলাইনেই গ্রহণ করতে পারেন।

ফুল টাইম বা পার্ট টাইম যেকোনাে ধরনের হাজার হাজার কাজ রয়েছে অনলাইনে। এর মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বায়ার এবং ওয়ার্কারগণ একই প্লাটফর্মে উপনীত হচ্ছেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বায়ারগণ তাদের কাজগুলাে সস্তায় অন্য দেশের কর্মীদের মাধ্যমে অনলাইনে করিয়ে নিচ্ছেন।


অনলাইন মার্কেটপ্লেসের হাজার হাজার কাজ থেকে নিজের যােগ্যতা অনুযায়ী নির্দিষ্ট কোনাে কাজ খুঁজে নেয়া ও সেটি সম্পাদন করার পর বায়ারের কাছ থেকে তার পেমেন্ট গ্রহণ করার মাধ্যমে যে উন্মুক্ত পেশা বা ফ্রিল্যান্সিং কাজের সৃষ্টি হয়েছে সেটিকে আউটসাের্সিং বলে। এর মাধ্যমে হাজার হাজার লােকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হচ্ছে। দেশে আসছে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা।

জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতি বিকাশের সাথে সাথে আমেরিকা, ইউরােপ কিংবা বিশ্বের উন্নত দেশগুলােতে প্রয়ােজন দেখা দিচ্ছে বিপুল পরিমাণ ডেটা প্রসেসিংয়ের। যার ফলে উন্নয়নশীল দেশসমূহ আইসিটি এনাবন্ড সার্ভিসকে কাজে লাগিয়ে অর্জন করছে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা। শুধু বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন নয়, এর ফলে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে দেশের বিপুল সংখ্যক প্রশিক্ষিত বেকার দক্ষ জনগােষ্ঠীর।


আউটসাের্সিং সংশ্লিষ্ট অপর জনপ্রিয় শব্দটি হলাে ফ্রিল্যান্সিং। ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) এর অর্থ হলাে স্বাধীন বা মুক্তপেশা। নির্দিষ্ট কোন প্রতিষ্ঠানের অধীনে না থেকে স্বাধীনভাবে কাজ করা কে ফ্রিল্যান্সিং বলে। ফ্রিল্যান্সিং যারা করেন এ ধরণের পেশাজীবীকে বলা হয় ফ্রিল্যান্সার (Freelacer)। ফ্রিল্যান্সাররা চাকরিজীবীদের মতাে বেতনভুক্ত নয় বরং কাজ ও চুক্তির উপর নির্ভর করে তাদের আয়ের পরিমাণ কম বা অনেক বেশি হতে পারে।

তবে এ পেশায় স্বাধীনতা আছে, ইচ্ছা মতাে ইনকামের সুযােগও আছে। আধুনিক যুগে বেশিরভাগ ফ্রিল্যান্সিং কাজগুলাে ইন্টারনেট মাধ্যমে সম্পন্ন হয়ে থাকে। ফলে ফ্রিল্যান্সারগণ ঘরে বসেই তাদের কাজ করে উপার্জন করতে পারেন।


বর্তমানে ছাত্র- ছাত্রী এবং অনেক চাকুরিজীবী এই পেশায় আসছেন। ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসাের্সিং এখন একটি শিল্পে পরিণত হয়েছে। আউটসাের্সিং শিল্পকে কাজে লাগিয়ে আমাদের দেশের শিক্ষিত বিরাট জনগােষ্ঠী এখন অর্থ উপার্জন করতে পারছে। বাংলাদেশ প্রতি বছর আউটসাের্সিং হতে কয়েক মিলিয়ন ডলার আয় করে। শিক্ষিত বেকার জনগােষ্ঠীর অনেকেই এ শিল্পকে কাজে লাগিয়ে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছে। উন্নত বিশ্বের মতাে বাংলাদেশেও অনেকে এ খাতে বিনিয়ােগ করছেন।

ফলে বহু লােক সম্পৃক্ত হচ্ছে বিভিন্ন কাজে, সৃষ্টি হচ্ছে কর্মসংস্থান। গ্লোবাল আউটসাের্সিং মার্কেটপ্লেসগুলাের মধ্যে রয়েছে- ফ্রিল্যান্সার ডট কম, আপওয়ার্ক, ইল্যান্স, গুরু, ভিওয়ার্কার ইত্যাদি। আউটসাের্সিং বা অনলাইন মার্কেট প্লেসে কাজের ক্ষেত্রগুলাে হচ্ছে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, সফটওয়্যার, ডেভেলপমেন্ট, নেটওয়ার্কিং ও তথ্যব্যবস্থা (ইনফরমেশন সিস্টেম), লেখা ও অনুবাদ, ডেটা প্রসেসিং, ডিজাইন ও মাল্টিমিডিয়া, গ্রাহকসেবা (কাস্টমার সার্ভিস), বিক্রয় ও বিপণন, ব্যবসা, সেবা ইত্যাদি।

180 Views
No Comments
Forward Messenger
. 19

Craigslist Update News
-
- -
Android Studios Earning Apps
-
- -
Basics Press Notice
1
Technology Updates
10
Electronics
2
Android Programing
16
iOS Programing
2
Computer Programing
13
Wireless Fidelity
4
Hacking tutorials
15
Mobile Networks
3
Videos Programing
5
Movie Review
4
Freelancing
34
Web Development
18
Social Network
23
Politics News
2
Education Guideline
6
Religious Fiction
15
Magic Tricks
3
LifeStyle
17
Uncategorized
40
No comments to “ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসাের্সিং – freelancing and outsourcing bangla tutorial”